iStock_000000833614XSmall-listing-agreementযে কোন নতুন ব্যবসা মালিক জানেন যে একটি ব্যবসা শুরু করতে কত হাজারো কাজ করতে হয়। এক এক করে ব্যবসার অনুমোদন নেয়া, টাকা পয়সা যোগাড় করতে করতে ক্লান্ত হয়ে যাওয়ার উপক্রম হয়। উপরুন্তু ব্যবসার মালিককে চিন্তা করতে হবে কিভাবে তার পণ্য ও সেবা বিপণন ও বিক্রয় করতে হবে।

আবার দেখা যায়, অনেক সময় ব্যবসার শুরুর দিকে মালিক বা মালিকগন ব্যবসা ছেড়ে চলে যায়। তাদের এই চলে যাওয়ার অনেক কারন থাকতে পারে, যেমন, তারা অন্য নতুন ব্যবসা শুরু করতে পারেন, বা তারা অন্য কোথাও চাকরি শুরু করতে পারেন, বা তারা অন্য কোথাও চলে যেতে পারেন, বা তারা অবসর কিতে পারেন, বা অন্য কোন দুর্ঘটনা ঘটতে পারে। তখন দেখা যাবে নতুন কোন ব্যবসায়ী ব্যবসায়ের অংশটি কিনে নিচ্ছে।

 

কিন্তু এই ব্যবসা ক্রয় বিক্রয়ের চুক্তির ব্যপারে খুব বেশি একটা তথ্য কোথাও পাওয়া যায় না। এটা খুব সহজ কোন ব্যপার নয় কারন, এই ক্রয় বিক্রয় চুক্তি হল এমন একটা ব্যপার যা আপনার এবং আপনার ব্যবসায়িক পার্টনারদের মধ্যে নির্ধারণ করে কিভাবে কোন মালিক ব্যবসা বিক্রয় করতে পারবে, কিভাবে অন্য কেউ সেই ব্যবসায়িক অংশটি কিনতে পারবে, এর দাম কিভাবে নির্ধারণ করা হবে।

 

অনেকে মনে করেন, ক্রয় বিক্রয়ের চুক্তি একটি সাধারন চুক্তি – যেখানে কমন সম্পত্তির ব্যপারে বলা থাকে বা যখন কেউ ব্যবসা ছেড়ে চলে যাবে তখন কি হবে তা বলা থাকে। ক্রয় বিক্রয়ের চুক্তি নির্ধারণ করবে যখন কেউ চলে যেতে চাইবে, তখন অন্য মালিকদের কি দাবী থাকবে। এ ব্যপারে তখন কারও দুশিন্তা করতে হবে না। এই চুক্তিই নির্ধারণ করবে কখন এবং কিভাবে একজন মালিককে বিক্রয় বা ক্রয় করার অনুমতি দেয়া যাবে, কখন বা কি পরিস্থিতিতে বিক্রয় করার দরকার হবে বা কিভাবে এমন কাউকে ব্যবসা কেনা থেকে আটকে দেয়া যায় যাকে আপনি বা আপনারা চাইবেন না, বা কিভাবে ব্যবসা এবং মালিকদের হিস্যা নির্ধারণ হবে, কিভাবে অর্থ পরিশোধ এবং মালিকানা পরিবর্তন করা যাবে ইত্যাদি।

 

যদি ঘুণাক্ষরেও আপনার মধ্যে এইসব প্রশ্ন নিয়ে কোন সংশয় থাকে তবে আপনি তখনি নিচের প্রশ্নগুলো দেখে নিন,

১। যদি কোম্পানির আর্থিক মন্দা অবস্থায়ে আপনার অংশীদার আপনাকে অযৌক্তিক দামে কম্পানি কিনে নিতে বলে তখন কি হবে?

২। যদি আপনার ব্যবসায়িক অংশীদার কোন ভাবে শারিরিকভাবে বিকালঙ্গ হয়ে যায়, তবে আপনি কি তার অংশ কিনতে পারবেন বা তার আইনি এজেন্ট আপনাকে তা চড়া দামে কিনতে বাধ্য করবে?

৩। অথবা আপনার কোন ব্যবসায়িক অংশীদার মাতাল বা কোন ঔষধে আসক্ত হয়ে গেল অথবা তার পেশাদারী অনুমতি বাতিল হয়ে গেল। তাইলে কি তাকে ব্যবসা থেকে বের করে দিতে হবে?

৪। অথবা যদি আপনার ব্যবসায়িক অংশীদার তালাকপাপ্ত হয় এবং এর নিস্পত্তি সরূপ তার প্রাক্তন স্বামী বা স্ত্রী ব্যবসায়ের মালিক হয়ে যায়।

৫। অথবা আপনার ব্যবসায়ের বেশিরভাগ মালিকগন অচেনা কারও কাছে ব্যবসায়ের মালিকানা বিক্রয় করে দিতে চায়?

৬। অথবা যদি আপনার কোন ব্যবসায়িক অংশীদার তার বখে যাওয়া পুত্র বা কন্যা কে তার ব্যবসায় অংশ দিতে চায় যে কখনও কোন কোম্পানির জন্য এক ঘণ্টাও কাজ করেনি।

৭। অথবা ধরুন আপনি আপনার পুত্র, কন্যা, স্ত্রী – সমস্ত পরিবারের জন্য একমাত্র উপার্জনক্ষম ব্যক্তি। আপনার অবর্তমানে যখন আপনার স্ত্রী আপনার ব্যবসায়ের মালিক হবে, তিনি কি জানবেন এখানে তাকে কি কি করতে হবে?

 

এই ব্যপারগুলো আপনার সেইসব পরিস্থিতির উত্তর দিবে যা আপনার জীবনে যে কোন সময় ঘটতে পারে। আপনার ব্যবসা রক্ষা করতে, আপনার বিনিয়োগ রক্ষা করতে এবং সব চেয়ে গুরুত্বপূর্ণ হল আপনার পরিবারের রক্ষা করতে আপনার এই ধরণের চুক্তি খুব সাবধানে করতে হবে। নতুবা দেখা যাবে আপনার বিনিয়োগ এবং পরিশ্রম সব ব্যর্থ হচ্ছে।

পৃষ্ঠপোষকতায় –

Khair Consulting

https://www.facebook.com/pages/Khair-Consulting/100913583384847

Similar Posts

1 Comment

  1. ঘরে বসে আপনি আপনার দোকান অনলাইনে পরিচালনা করুন ফ্রী…।।
    http://www.shopingmol.com এ অ্যাকাউন্ট খুলুন এবং ফ্রি বিজ্ঞাপন দিন ।

Leave a Reply